|

নেপালে সেনাবাহিনী চিকিৎসা ও বিমান বাহিনীর ত্রাণ

নেপালে ভয়াবহ ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্য নিয়ে যাওয়া বিমান বাহিনীর সি-১৩০ উড়োজাহাজ দেশটিতে আটকাপড়া ২ জন বাংলাদেশি নারী ও ৪ শিশুকে নিয়ে দেশে ফিরেছে।

শুক্রবার (০১ মে) উড়োজাহাজটি দেশে ফিরে আসে। এর আগে এদিন ভোরে বিভিন্ন ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে উড়োজাহাজটি সেখানে উপস্থিত হয়।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে বিমান বাহিনীর এ উড়োজাহাজটি নেপালে ভয়াবহ ভূমিকম্পে ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যের জন্য ১০ টন ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে ‍যায়। এরমধ্যে ছিল বিভিন্ন ধরনের ওষুধ, তাবু, কম্বল-কাপড়, বিস্কুট ও খাবার পানি। উড়োজাহাজটি নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে অবতরণ করে।

এছাড়া গত ২৬ এপ্রিল একই উড়োজাহাজে সেনাবাহিনীর ১৭ সদস্যের ৬টি চিকিৎসক দলসহ ৩৪ জনের একটি প্রতিনিধি দল বিভিন্ন ধরনের ১০ টন ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে নেপাল যায়। এরপর একই দিনে ফিরে আসার সময় সেখানে আটকা পড়া ৪৯ জন বাংলাদেশিকে ফেরত নিয়ে আসে।

সেনাবাহিনীর চিকিৎসক দলটি ২৭ এপ্রিল কাঠমান্ডু ত্রিভূবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ২০ কিলোমিটার দূরে ললিতপুর জেলায় অবস্থান করছে এবং চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছে।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর চিকিৎসা দলের কাছ থেকে এ পর্যন্ত চিকিৎসা গ্রহণকারীর সংখ্যা ১ হাজার ৬৩ জন। তার মধ্যে ফ্রাকচার ৩৩ জন, কনটিউশন ও কাট ইনজুরি ১৭০ জন, স্প্রেইন ৬৫ জন, সামান্য আহত ১২০ জন এবং অ্যাকিউট ব্যাকএক ৫৭ জন। এছাড়া বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত ৬১৮ জন।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ৭:২০ অপরাহ্ণ | মে ০১, ২০১৫