|

বাজিতপুরসহ ৫ উপজেলায় বৃষ্টিতে কাচাঁ ইট নষ্ট : ব্যবসায়ীদের মাথায় হাত:

মহিউদ্দিন লিটন, বাজিতপুর থেকে ঃ  কিশোরগঞ্জের বাজিতপুরসহ ৫ উপজেলার ৩০ টি ইটভাটায় কাল বৈশাখী ঝড় ও ভূমি কম্পে ইট ভাটার মালিকগনের লাখ লাখ কাচাঁ ইট নষ্ট হওয়ার কারনে কোটি কোটি টাকা ভেস্তে গেছে। মালিকরা জানান, বৃষ্টি ও ভূমি কম্পের কারনে কাচাঁ ইট নষ্ট হওয়ায় তারা হাজার শ্রমিকদের ভেতন দিতে পারছেন না বলে সাংবাদিকদের নিকট জানান। এ দিকে ইরি-বোরো ধান মৌসুম শুরু হওয়ায় গত ১৫ দিন ধরে পুড়ানো ইট বিক্রি করতে পারছেন না ও শ্রমিকদের মজুরী ও পরিশোধ করতে পারছেন না । জানা যায়, এ বছর সরকার ভারতের মেঘালয় হতে কয়লা আমদানি করতে না পারায় জেলার প্রায় ৫০/৬০ টি ইট ভাটা বন্ধ রয়েছে । যদিও এ বছরের ফেব্রুয়ারী মাসে ইন্দোনেশিয়া হতে কয়লা আমদানী করা হলেও কয়লার মান খুব নিম্ম মানের । সে জন্য ইট ভাটার মালিকরা এবছর ইট খলা চালু করেন নি। গতকাল বুধবার জারুইতলা ইউনিয়নের সামিয়া ব্রিকস এর মালিক হাজী মো: জাফর আলী ও বাজিতপুর ইট ভাটার মালিক মো: শহিদুল ইসলাম জানান, তাদের মত অনেক ইট ভাটার মালিকদের কালবৈশাখী ঝড়ে কাচাঁ ইট নষ্ট হয়ে গেছে। হাজী মো: জাফর আলী বলেন , গত কয়েক দিনে বৃষ্টিতে তার ইটখলার ৮/৯ লাখ ইট নষ্ট হয়েছে এতে তার ক্ষতি হয়েছে। অন্তত ৫০ লাখ টাকা । এ বছর কোনো ইট ভাটাই শ্রমিকের বেতন ও আনুষাঙ্গিক খরচ দিয়ে লাভের চোখ না দেখে লোকসানের খাতা গুনতে হবে বলে উল্লেখ করেন।

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ২:৫৫ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৯, ২০১৫