|

নেপালে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৩,২১৮ ও আহত ৬,৫০০

২৭ এপ্রিল ২০১৫, সোমবার:
রিখটার স্কেলে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্পে নেপালে প্রতি মুহূর্তে বেড়ে চলেছে প্রাণহানির সংখ্যা। সর্বশেষ পরিসংখ্যানে জানা গেছে, এখন পর্যন্ত সেখানে ৩ হাজার ২১৮ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। আহত হয়েছেন ৬,৫০০ মানুষ। নেপালের জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থার প্রধান রামেশ্বর দঙ্গল এ তথ্য দিয়েছেন। গত শনিবার সকাল ১১টা ৫৬ মিনিটে রাজধানী কাঠমা-ু ও পোখারা শহরের মধ্যবর্তী স্থানে ভূমিকম্পটি আঘাত হানে।  এদিকে গতকাল দ্বিতীয় রাতের মতো প্রচ- আতঙ্ক নিয়ে হাজার হাজার মানুষ খোলা আকাশের নিচে রাত কাটিয়েছেন। রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে বিস্তীর্ণ অঞ্চলজুড়ে তাঁবু খাটানো হয়েছে। সেখানে বৃষ্টির মধ্যেই কোনমতে রাত যাপন করছেন অধিবাসীরা। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সড়কের পাশে এমনই একটি তাঁবুতে ঘুমিয়ে রাত কাটানো ৩৪ বছর বয়সী রবি শ্রেষ্ঠ বলছিলেন, আমাদের আর কোন উপায় নেই। আমাদের বাড়িঘর নড়বড়ে অবস্থায়। বৃষ্টির পানি চুঁয়ে চুঁয়ে তাঁবুর ভেতর ঢুকছে। কিন্তু, আমরা কিইবা করতে পারি? বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে উদ্ধারকাজে সহযোগিতায় নেপালের উদ্দেশে রওনা হওয়া উদ্ধারকারী ও চিকিৎসকদের বেশ কয়েকটি দল এবং ত্রাণ-সামগ্রী এরই মধ্যে সেখানে পৌঁছেছে। রেডক্রসসহ বিভিন্ন দাতব্য সংগঠন সেখানে আগে থেকেই কাজ করছে। আজ সকালে আবহাওয়া ভালো থাকায় মাউন্ট এভারেস্টের বেজ ক্যাম্প থেকে আহত পর্বতারোহীদের উদ্ধারে বেশ কয়েকটি হেলিকপ্টার সেখানে গেছে। এভারেস্টে ভূমিকম্পে সৃষ্ট ব্যাপক তুষারধসে গুগলের নির্বাহী কর্মকর্তা ড্যান ফ্রেডিনবার্গসহ ২২ জন নিহত ও বেশ কয়েকজন আহত হন। এদিকে রাজধানীর উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থলে যাওয়ার পথ পরিষ্কার করা হয়েছে এবং উদ্ধারকারী ও ত্রাণ বিতরণকারী দলের সদস্যরা আক্রান্ত অঞ্চলসমূহের উদ্দেশে রওনা হয়েছেন। তবে অধিকাংশ স্থানে যোগাযোগ ব্যবস্থা সম্পূর্ণ ভেঙে পড়ায় এখনও কঠিন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হচ্ছে উদ্ধারকারীদের।

 

এ সম্পর্কিত আরও সংবাদ

সর্বশেষ আপডেটঃ ১:২৮ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২৭, ২০১৫